অবশেষে পিতা ও সৎ মায়ের নিষ্ঠুরতার কাছে হার মানল ফাহমিদা

admin
  • আপডেট টাইম : সেপ্টেম্বর ২২ ২০২২, ২১:২৩
  • 513 বার পঠিত
অবশেষে পিতা ও সৎ মায়ের নিষ্ঠুরতার কাছে হার মানল ফাহমিদা

আখলাছ আহমেদ প্রিয়, হবিগঞ্জ  \

অবশেষে মৃত্যুর কাছে হার মানল প্রায় দেড় মাস পর বন্দিদশা থেকে মুক্তি পাওয়া ফাহমিদা আক্তার। বৃহস্পতিবার সকালে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন মাধবপুর থানার (ওসি) মোঃ আব্দুর রাজ্জাক। ফাহদিমা মাধবপুর উপজেলার শাহজিবাজার বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের অপারেটর আলী আকবরের মেয়ে। আলী আকবর বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের আবাসিক ভবনে বসবাস করতো।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় দেড় মাস আগে আলী আকবরের কিশোরী কন্যা ফাহমিদা আক্তার জ্বর, সর্দি ও কাশিতে আক্রান্ত হয়। ফাহমিদা এসব রোগে আক্রান্ত হলেও তার বাবা ও সৎমা তাকে ডাক্তার না দেখিয়ে পানি পড়া ও তাবিজখবজসহ স্থানীয় ভাবে নামে মাত্র চিকিৎসা করায়। আর দিনের পর দিন ফেলে রাখে একটি কক্ষে। আর এতে করে আরো বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হতে থাকে সে। এভাবে প্রায় দেড় মাস অতিবাহিত হওয়ার পর বিষয়টি সংবাদকর্মী ও স্থানীয়দের মাধ্যমে জানতে পারেন মাধবপুর থানার (ওসি) মোঃ আব্দুর রাজ্জাক। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিনি পুলিশ ও চিকিৎসক নিয়ে আলী আকবরের বাড়িতে হাজির হন। সেখানে গিয়ে ফাহমিদা কে সৎমা ও তার বাবার কবল থেকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেটে প্রেরণ করেন।
ওসি আব্দুর রাজ্জাক বলেন, স্থানীয় সংবাদকর্মীদের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে আমরা দ্রæত সেখানে যাই। গিয়ে তাকে উদ্ধার করে সিলেটে প্রেরণ করি। সকালে সিলেটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে ফাহমিদা। আমরা অনেক চেষ্টা করেও তাকে বাঁচাতে পারিনি। তিনি বলেন, যদি কিছুদিন আগে খবর পেতাম তা হলে হয়তো তাকে বাচানো যেত। ফাহমিদার বাবা আকবর আলী জানান, গত ১৫ বছর আগে ফাহমিদার মায়ের সাথে তার ছাড়াছাড়ি হয়। এরপর থেকে ফাহমিদা ও তার এক ভাই তার কাছেই ছিল। কিছু দিন আগে ফাহমিদা সর্দি, জ্বর-কাশিতে আক্রান্ত হওয়ার পর কিছু ওষুধ দেওয়ার পর তার রোগ সারেনি। বৃহস্পতিবার সে মারা গেছে।

0Shares
এই ক্যাটাগরীর আরো খবর