৫০ বছরের মধ্যে পানির স্তর সর্বোচ্চ উচ্চতায় পৌঁছেছে ব্রহ্মপুত্র নদে

  • আপডেট টাইম : জুন ১৮ ২০২২, ০৫:৫৭
  • 11 বার পঠিত
৫০ বছরের মধ্যে পানির স্তর সর্বোচ্চ উচ্চতায় পৌঁছেছে ব্রহ্মপুত্র নদে

ব্রহ্মপুত্র নদে পানি বৃদ্ধির কথা জানিয়ে এই সতর্কতা দিয়েছে বলে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো জানাচ্ছে। সতর্কতায় বলা হয়েছে, চীনের তিব্বতে অতিরিক্ত বৃষ্টির কারণে ইয়ারলুং সাংপো নদে গত ৫০ বছরের মধ্যে পানির স্তর সর্বোচ্চ উচ্চতায় পৌঁছেছে। এই অতিরিক্ত পানি ছেড়ে দিচ্ছে তারা। চীনে যেটি ইয়ারলুং সাংপো, সেটিই ভারত এবং বাংলাদেশে ব্রহ্মপুত্র নামে পরিচিত। আর এই নদে বিপৎসীমার ওপরে বইলে বন্যা অবধারিত তিন দেশে।  চীনের তিব্বত থেকে আসাম আর অরুণাচল প্রদেশ হয়ে ইয়ারলুং সাংপো ব্রহ্মপুত্র নাম নিয়ে বাংলাদেশের দিকে প্রবাহিত হয়েছে। হিমালয় থেকে উৎপন্ন হওয়া নদনদীগুলোর মধ্যে সবচেয়ে খরস্রোতা এই ব্রহ্মপুত্র। এটি পৃথিবীর অন্যতম দীর্ঘ নদও। চিঠিতে ভারত জানিয়েছে, তিব্বতে অতি বৃষ্টির কারণে সেখানকার সাংপো নদীতে পানি বেড়ে গেছে। এই অতিরিক্ত পানি চীন ব্রহ্মপুত্রে ছেড়ে দিয়েছে। এর ফলে ভাটির দেশগুলোতে বন্যা হতে পারে। এর প্রভাব বাংলাদেশেও পড়বে। চিঠিতে আরও জানানো হয়েছে, ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলের অরুণাচল ও আসাম রাজ্যকে সতর্ক অবস্থায় থাকার জন্য বলেছে। ব্রহ্মপুত্র বাংলাদেশে কিছুদূর এগিয়ে একটি স্রোত যমুনা নামে মিশেছে পদ্মায়। ফলে উজানে ব্রহ্মপুত্রে পানি বাড়লে যমুনা ও পদ্মায়ও পানি বাড়ে। আর এই তিন নদী এক সঙ্গে বিপৎসীমা ছাড়ালে বড় বন্যা হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়। যদি পদ্মা বিপৎসীমা নাও ছড়ায়, তারপরও ব্রহ্মপুত্র ও যমুনায় পানি বাড়লে উত্তরাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চল তলিয়ে যায়।

পাহাড়ি ঢল ও টানা বৃষ্টিতে সিলেট ও সুনামগঞ্জে আবারও ভয়াবহ বন্যা দেখা দিয়েছে। এতে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন কয়েক লাখ মানুষ। সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ, গোয়াইনঘাট ও জৈন্তাপুরে পানিবন্দি লোকজন চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে,  সিলেটে সুরমা বিপদসীমার ১৩ সেন্টিমিটার, কানাইঘাটে সুরমা ১০৭ সেন্টিমিটার, ফেঞ্চুগঞ্জে কুশিয়ারা ২১ সেন্টি মিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছ

 

 

 

ঢাকাটাইমস/০৬সেপ্টেম্বর/ডিএম

0Shares
এই ক্যাটাগরীর আরো খবর