সিরিয়ায় বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের তথ্য গোপনের চেষ্টা যুক্তরাষ্ট্রের

  • আপডেট টাইম : নভেম্বর ১৪ ২০২১, ০৮:২৯
  • 40 বার পঠিত
সিরিয়ায় বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের তথ্য গোপনের চেষ্টা যুক্তরাষ্ট্রের

অনলাইন ডেস্কঃ সিরিয়ায় উগ্র জঙ্গিগোষ্ঠী দায়েশের কথিত আস্তানায় হামলার অজুহাতে ২০১৯ সালে মার্কিন বাহিনী পর পর দুই দফা বিমান হামলা চালিয়ে ৭০ নারী ও শিশুকে হত্যা করেছিল।

তখন মার্কিন কর্তৃপক্ষ বিষয়টি প্রকাশ না করে গোপন করেছে বলে শনিবার গণমাধ্যমে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানা গেছে। খবর নিউইয়র্ক টাইমস ও আনাদোলুর।

মার্কিন দৈনিক নিউইয়র্ক টাইমস শনিবার জানিয়েছে, ২০১৯ সালের ১৮ মার্চ সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় দেইর আল-জোর প্রদেশের বাগুজ শহরের কাছে ওই বিমান হামলা চালানো হয়।

হামলার সময় অপারেশন্স সেন্টারে উপস্থিত থাকা মার্কিন বিমানবাহিনীর এক আইনজীবী মনে করেন, ওই হামলায় ‘যুদ্ধাপরাধ’ সংঘটিত হয়েছে।

তিনি পরবর্তী সময় মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ইন্সপেক্টর জেনারেল এবং মার্কিন সিনেটের সশস্ত্র বাহিনীবিষয়ক কমিটিকে বিষয়টি অবহিত করেন বলে নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে।

কিন্তু এ সত্ত্বেও বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত কোনো তদন্ত বা বিশেষ কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। তবে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় একটি দায়সারা তদন্ত করেছিল, যেটির প্রতিবেদনে বোমাবর্ষণের কথাই উল্লেখ করা হয়নি।

মধ্যপ্রাচ্যে মোতায়েন সামরিক বাহিনীর তত্ত্বাবধানকারী মার্কিন সেন্ট্রাল কমান্ড এই ভয়াবহ গণহত্যাকে ‘বৈধ আত্মরক্ষা’ বলে সাফাই দিয়েছে।

এটি দাবি করেছে, ওয়াশিংটনসমর্থিত কুর্দি মিলিশিয়াদের সমর্থনে ওই হামলা চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

এটি আরও দাবি করেছে, ঘটনাস্থলে যে বেসামরিক নাগরিকদের উপস্থিতি নেই, সেটি নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল।

উগ্র জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসকে দমনের অজুহাতে ২০১৪ সালে সিরিয়ায় আগ্রাসন চালায় আমেরিকা। তবে আইএসকে দমনের পরিবর্তে মার্কিন সেনারা এই জঙ্গিগোষ্ঠীকে সার্বিক সহযোগিতা দিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর