নিউইয়র্ক এ রায়হান হত্যার বিচার দাবিতে জ্যাকসন হাইটস ফ্রেন্ড সোসাইটি’র প্রতিবাদ সমাবেশ

  • আপডেট টাইম : অক্টোবর ১৯ ২০২০, ১৬:২৫
  • 295 বার পঠিত
নিউইয়র্ক এ রায়হান হত্যার বিচার দাবিতে জ্যাকসন হাইটস ফ্রেন্ড সোসাইটি’র প্রতিবাদ সমাবেশ

মোস্তফা অনিক রাজ, নিউইয়র্ক:-

সিলেট মেট্রোপলিটন মহানগর পুলিশের কতোয়ালী থানাধীন বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে বরখাস্ত এসআই আকবর হোসেন কর্তৃক রায়হান আহমদ হত্যার প্রতিবাদে সারাদেশের মানুষ প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। তারই অংশ হিসেবে নিউইয়র্কের “জ্যাকসন হাইটসে বাংলাদেশ ফ্রেন্ড সোসাইটি” রায়হান হত্যার প্রতিবাদে স্থানীয় ডাইভারসিটি প্লাজায় এক প্রতিবাদ সভা  সমাবেশের আয়োজন করে। সদ্য গঠিত সংগঠনের আহবায়ক সৈয়দ রুবেল আহমদ’র সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব ফরিদ আহমদের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। বক্তব্য রাখেন নিহত রায়হানের চাচা এবং চাচিও। রায়হানের চাচী রায়হান হত্যার বিচার দাবী করে বলেন, পুলিশের হাতে থেকে রায়হানকে মুক্ত করার জন্য ১০ হাজার টাকা নিয়ে যাওয়ার পরেও তাকে বাচাঁনো গেলো না। রায়হানকে পিঠিয়ে হত্যা করে তার দুই মাসের নবজাতক শিশুকে যে এসআই আকবর বাবাহারা করেছে তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করছি। এবং রায়হান আমেরিকা আসার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন ছিলো। কিন্তু প্যান্ডামিকের জন্য আটকে গিয়েছিলো বলেও তিনি জানান। রায়হানের চাচা বলেন, বরখাস্ত এসআই কিভাবে পালিয়ে গেলো? এসপি ফরিদ উদ্দিন  হত্যাকারীতে আকবর কে সহোযোগিতা করছেন বিদায় সে পালিয়ে যেতে পেরেছে। যেই করে হোক মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আবেদন করছি যাতে তাকে অতি দ্রুত খুজে বের করে ফাঁসির কাস্টরিতে ঝুলানো হয়। সংগঠনের আহবায়ক বলেন, পুলিশ কাস্টরিতে নির্যাতন করে রায়হানকে হত্যা করা হয়েছে। এমন জগন্যতম কাজ মেনে নেয়া যায় না। শুধু মাত্র রায়হানকেই হত্যা করেনি। রায়হানের পুরো পরিবারকে হত্যা করা হয়েছে। কারণ রায়হানের স্ত্রীকে বিধবা করার পাশাপাশি তার দুই মাসের একটা শিশু  সন্তানকে এতিম  করলো এই আকবর। রায়হানের মাকে সন্তানহারা করা হয়েছে। একমাত্র পুক্রসন্তানই ছিলো রায়হান। আমি উক্ত সংগঠনের পক্ষ থেকে এর দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তী দাবী করছি৷ পূনরায় যাতে এমন কোনো গঠনা না ঘটে৷

এমন কোনো দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে  আর কোনো মানুষ যেনো রায়হানের মতো পুলিশ কাস্টরিতে নিহত হতে না হয়। এবং পলাতক খুনি আকবর এর  সন্ধান দিতে পারলে ২ লক্ষ টাকা পুরষ্কৃত করা হবে বলে ঘোষণা দেন সদস্য সচিব ফরিদ আহমদ।

আর উপস্থিত ছিলেন সাবেক বালাগঞ্জ এর মহিলা চেয়ারম্যান হাবিবা বেগম, রাজীব চৌদরী রাজ, রেদওয়া আহমেদ,সাহেদ আহমদ,সেলিম আলী,ফজল হুসেন,হাবীব রহমান, মোবারক দেওয়ান,রায়হান সুমন,রুহেল খান,পারবেছ মিয়া ,সাহাজান মিয়া,সাহবাজ আহমেদ,আলম,বুরহান উদ্দিন,আরিফ আহমেদ,এস রহমান টিটু তুহিন আহমেদ,জাবেদ আহমেদসহ জ্যাকসন হাইটস্ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সর্বস্তরের নেতৃবৃনদ

 

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর