প্রবাসি ও দেশবাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, জালালাবাদ এসোসিয়েশন ইতালির সভাপতি – অলি উদ্দিন শামিম

  • আপডেট টাইম : জুলাই ৩০ ২০২০, ০৪:৫০
  • 105 বার পঠিত
প্রবাসি ও দেশবাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, জালালাবাদ এসোসিয়েশন ইতালির সভাপতি – অলি উদ্দিন শামিম

পবিত্র ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জালালাবাদ এসোসিয়েশন ইতালির সভাপতি,প্রবাসি কমিউনিটি নেতা অলি উদ্দিন শামিম ঈদুল আযহা উপলক্ষে শুভেচ্ছা বার্তায় তিনি বলেন – সকল মুসলিম ভাইবােনদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মােবারকবাদ, হিজরী দিনপুঞ্জি পরিক্রমায় মুসলিম উম্মাহর আনন্দ’ময় দিন ঈদুল আযহা’র় সমাগত । পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে জালালাবাদ এসোসিয়েশন, প্রবাসে অবস্থানরত ও দেশের সর্বস্থরের জনসাধারন কে জানাই় ঈদের শুভেচ্ছা ঈদ মোবারাক
মহান আল্লাহর প্রতি গভীর আনুগত্য ও সর্বোচ্চ ত্যাগের মহিমায় ভাস্বর পবিত্র ঈদুল আযহা।পবিত্র ঈদ-উল আযহা’র ইতিহাস,মহান আল্লাহর নির্দেশে হযরত ইব্রাহিম (আঃ) স্বীয় পুত্র হযরত ইসমাইল ( আঃ) কে কোরবানি করতে উদ্যত হয়ে হযরত ইব্রাহিম ( আঃ) আল্লাহর প্রতি অবিচল আনুগত্য,অকুণ্ঠ আত্মত্যাগ ও অগাধ ভালােবাসার হযরত ইব্রাহিম (আঃ)এই দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন,যা চিরকাল অনুকরণীয় ও অনুসরণীয় সকল মুসলিম উম্মাহ জন্য তাঁরই নিদের্শ স্বরুপ আমরা প্রতি বছর মহান আল্লাহ’তায়ালার সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে পশু কোরবানী করি। তিনি আরও বলেন,পবিত্র ঈদ-উল-আযহা’র় উপলক্ষে সামর্থ্য বান সকল মুসলিম’গণ মহান রাব্বুল আলামীনের সন্তুষ্টির লাভে উদ্দেশ্যে পশু কোরবানি করে থাকে।আর নিজ হাতে লালন পালন করা পশু কোরবানির দেওয়া সব থেকে উত্তম।

পবিত্র ঈদ-উল – আযহা আমাদের পরমতসহিষ্ণুতা,সাম্প্রদায়িক সাম্প্রতী’শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান ও আত্মত্যাগের শিক্ষা দেয়।পবিত্র ঈদ-উল-আযহার এ শিক্ষা অন্তরে লালন করে মহান আল্লাহ তায়ালার সান্নিধ্য ও সন্তুষ্টি লাভের উদ্দেশ্যে আত্মত্যাগে পশু কোরবানি করি।পরে তিনি পবিত্র ঈদ-উল আযহা’র প্রকৃত শিক্ষা ও ত্যাগের আদর্শ ব্যক্তি ও সমাজ জীবনে প্রতিফলিত করার আহ্বান জানান এই উৎসবের মধ্য দিয়ে।

সামর্থ্যবান মুসলমানগণ কুরবানিকৃত পশুর মাংস আত্মীয় ও প্রতিবেশীদের মধ্যে যেন বিলিয়ে দে তিনি সে আহবান জানান।শান্তি সহমর্মিতা ত্যাগ ও ভ্রাতৃত্ববােধের শিক্ষা নিয়ে পবিত্র ঈদ-উল আযহা থেকে মর্মবাণী ধারন করে নিজ নিজ অবস্থান থেকে জনকল্যাণমুখী কাজে অংশ নিয়ে আমরা সকলে সুন্দর সমৃদ্ধ মাদক মুক্ত সমাজ গঠনের অগ্রণী ভূমিকা পালন করে সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ি ।এবং সমৃদ্ধ’শান্তিপূর্ণ বৈষম্যহীন সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদমুক্ত সমাজ তথা দেশ গঠনের দৃপ্ত শপথ গ্রহণ করি।বিশ্ব ভরে উঠুক শান্তি সৌন্দর্যে এবং সমাজে সাম্যের বাণী প্রতিষ্ঠিত করে পবিত্র ঈদ-উল -আযহার প্রকৃত শিক্ষা ও ত্যাগের আদর্শ ব্যক্তি ও সমাজ জীবনে প্রতিফলিত হােক – এই কামনা করেন। আসুন আমরা সমাজে সাম্যের বাণী প্রতিষ্ঠিত করে দেশ ও সমাজকে আলোকিত করি।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর